বিশ্ব ঐতিহ্যে ষাট গম্বুজ মসজিদ

বাগেরহাট জেলার নামের সাথে ওতপ্রোতভাবেই জড়িয়ে আছে বিখ্যাত মসজিদ ষাট গম্বুজের নাম।ঢাকা থেকে ঠিক দক্ষিণ-পশ্চিমে ১৭৮ কিঃমিঃ দুরে অবস্থিত এই মসজিদটি নিয়ে গবেষণা, অনুসন্ধান, বিশ্লেষণ কম হয়নি।তারপরও প্রতিনিয়ত তৈরি হয় নতুন গল্প, মেলে নতুন সব তথ্য।তবে গবেষকদের মতে এটি উপমহাদেশের বিখ্যাত ইসলাম প্রচারক খান জাহান আলী ১৫শ শতাব্দীতে এটি নির্মাণ করেন।মসজিদটির বাহিরের উত্তর-দক্ষিণে প্রায় ১৬০ ফুট ও ভিতরের দিকে প্রায় ১৪৩ ফুট লম্বা এবং পূর্ব-পশ্চিমে বাইরের দিকে প্রায় ১০৪ ফুট ও ভিতরের দিকে প্রায় ৮৮ ফুট চওড়া। দেয়ালগুলো প্রায় ৮৮ ফুট পুরু।স্থাপত্যের গঠন বৈচিত্রে তুঘলক স্থাপত্যের বিশেষ প্রভাব লক্ষ করা যায়।১৯৮৩ খ্রিষ্টাব্দে  ইউনেস্কো বাগেরহাটের অন্যান্য পুরাকীর্তির সাথে এ মসজিদটিকেও বিশ্ব ঐতিহ্য হিসেবে  ঘোষনা করে।বর্তমানে সাউথ এশিয়া টুরিজম ইনফ্রাস্ট্রাকচার ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট (এসএটিআইডিপি) এর অধীনে সংস্কারের কাজ চলছে। স্থাপত্যটি ঘুরে আলোকচিত্র তৈরী করেছেন তানজিমুল ইসলাম।

Jpeg

ষাট গম্বুজ মসজিদের প্রধান ফটক।

Jpeg

খানজাহান আলির তৈরি ষাট গম্বুজ মসজিদ। নাম ষাট গম্বুজ হলেও মোট গম্বুজের সংখ্যা ৭৭টি।

 

 

Jpeg

মসজিদের সামনে দর্শনার্থীদের চলাচলের জন্য পাকা রাস্তা এবং নয়নাভিরাম ফুলের বাগান।

 

Jpeg

স্থাপত্য ঘুড়ে দেখছেন  দেশ-বিদেশী দরশনার্থীরা।

 

 

 

Jpeg

বৃক্ষ ছায়া তলে ষাট গম্বুজ মসজিদ।

 

 

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s